দুরন্ত

ইউটিউব এসইও করুন নতুন নিয়মে, সঠিক ভাবে

ইউটিউব এসইও করুন নতুন নিয়মে, সঠিক ভাবে

নিজের ইউটিউব এর ভিডিও কিভাবে rank করবো? আপনি যদি এই বিষয় সর্ম্পকে কিছুই না জেনে তাহলে, আপনার চ্যানেল যতই ভালো হোক না কেন সে চ্যানেলের ভিডিও গুলো দর্শকদের কাছে পৌঁছাবে না। তাই কি আপনি চাচ্ছেন? কখনোই নয়!

 

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা ইউটিউব এর র‍্যাংক কি? এবং কিভাবে করবেন এ বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

 

কিভাবে আপনাদের ইউটিউব এর ভিডিও র‍্যাংক করাবেন?

আপনার ইউটিউব চ্যানেল এর ভিডিও র‍্যাংক করাতে চাইলে আপনার চ্যানেল টি optimized করতে হবে। আপনার ইউটিউব এর ভিডিও র‍্যাংক, অপটিমাইজেশন এর উপর নির্ভর করে। আর এই অপটিমাইজ হলো: সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।

 

মনে করুন তো আপনি যখন আপনার চ্যানেল টি ক্রিয়েট করেছিলেন তখন আপনার সামনে একটি অপশন এসেছিলো ডিসক্রিপশন নামক। মনে পরেছে কি? যাইহোক এই ডেসক্রিপশন আপনি কি লিখেছিলেন? আপনার ভিডিও সার্চ এর অনুযায়ী আছে কিন্তু সেগুলো দর্শকদের সামনে আসবে না। কেননা শুরুতে যে ডেসক্রিপশন সেখানে যদি আপনি কিছু নাই লিখেন তাহলে ইউটিউব বুঝবেই না যে আপনার ভিডিও কাদের কাছে উপযোগী।

 

এই ডেসক্রিপশন বক্সে আপনি কি ধরনের ভিডিও পাবলিশ করবেন তা লিখতে হবে। এরপর ইউটিউব বুঝবে আপনার ভিডিও কাদের উপযোগী। এখনই ইউটিউব এর সেটিং অপশনে যেয়ে এ কাজটি সম্পন্ন করে ফেলুন।

 

দ্বিতীয় বিষয় আরেকটি বিষয় আর সেটি হলো: আপনার ইউটিউব চ্যানেল ক্রিয়েট করার সময় আরও একটা অপশন এসেছিল সেটা হল: ইনপুট ইওর keyword।

 

আপনি যেই টপিক এর উপরে আপনার ভিডিওগুলো আপলোড করবেন সে ধরনের কিওয়ার্ড লেখা উচিত। তাহলে তো ইউটিউব বুঝতে পারবে এই ধরনের ভিডিও কাদের উপযোগী। যদি কেউ সার্চ করে আপনার টপিক এর উপর তাহলে আপনার ভিডিওগুলো তাদের সামনে দেয়া হবে।

 

এই ধরণের ভুল যদি আপনারা করে থাকেন অবশ্যই ইউটিউব চ্যানেলের সেটিং এ যে এগুলো ভালোভাবে সেটআপ করে নিবেন। আপনার ইউটিউব এর ভিডিও র‍্যাংক করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এগুলো, বিশেষ করে যারা ইউটিউব কে নিজেদের ক্যারিয়ার হিসেবে নিয়েছেন।

 

আমাদের আগের আর্টিকেলটি পড়তে পারেন এখানে।

 

সঠিকভাবে ট্যাগ ব্যবহার করুন ইউটিউব ভিডিওতে

 

ভিডিওতে ট্যাগ ব্যবহার করার বিষয়টি এখন সবাই জানে। তবে অনেকেই এখনো সঠিকভাবে ট্যাগ ইউজ করতে পারে না বা সঠিক নিয়ম জানে না। আপনার ভিডিওটি র‍্যাংক করানোর জন্য ট্যাগ খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই আপনার ভিডিও গুলোতে অবশ্যই ট্যাগ ইউজ করবেন।

 

আপনার ভিডিও অনুযায়ী আপনাকে ট্যাগ ব্যবহার করতে হবে। যখন আপনি ইউটিউবে কোন কিছু একটা কিছু লিখে সার্চ দিবেন, তখন দেখবেন কিছু একটা লেখার সাথে সাথে অনেকগুলো সাজেস্ট করা হয় টপিক। বুঝতে পারেননি? আচ্ছা আপনি যদি ইউটিউবে লেখেন কিভাবে আমি মোটা ,,,,,, এটুকু লিখলেই দেখবেন অনেকগুলো কিওয়ার্ড আপনার সামনে উপস্থাপন করা হবে।

 

যেমন:

আমি কিভাবে মোটা হব?

 

আমি কিভাবে প্রাকৃতিক ভাবে মোটা হতে পারি?

 

মোটা হওয়ার জন্য কোন ঔষধ সেবন করা উচিত বা ভালো হবে?

 

কোন ঔষধে প্রাকৃতিক ভাবে মোটা হওয়া যায়?

 

30 দিনে কিভাবে আমি মোটা হতে পারি?

 

আমি এটি উদাহরণ হিসেবে উপরে কিছু বাক্য লিখেছি। আপনারা যখন ইউটিউবে কিছু সার্চ করবেন দেখবেন যে অনেকগুলো শব্দ আপনার সামনে উপস্থাপন করা হবে। কারণ এই ধরণেরর শব্দই গুলো বেশি ব্যবহার করা হচ্ছে। এখন আপনি যে রিলেটেড ভিডিও আপলোড করবেন? সেখানে যদি ইউটিউব এর সাজেস্ট কৃত শব্দগুলো ট্যাগ হিসেবে ব্যবহার করেন।

 

আপনার ডেসক্রিপশনে ইউটিউব এর সাজেস্ট কৃত শব্দগুলো এক হিসেবে ব্যবহার করা হলে, এবং কেউ যদি ওই রিলেটেড সার্চ করে ইউটিউবে তাহলে। ইউটিউব খুব সহজেই বুঝে যাবে এই রিলেটেড ভিডিও সে টার্গেট করেছে আর তাই সাথে সাথে আপনার ভিডিওটি তাদের কাছে সবার আগে চলে আসবে।

 

তাই আপনারা অবশ্যই আপনার ভিডিও র‍্যাংক করানোর জন্য ডেসক্রিপশনে ট্যাগ ইউজ করবেন। তবে ইচ্ছামত ট্যাগ ব্যবহার করলেই হবে না। আপনার ট্যাগটি যদি একের অধিক শব্দ হয় তাহলে, প্রতিটা শব্দেই আন্ডার স্কোর ব্যবহার করবেন। ( _ )

 

যেমন:#আমি_কিভাবে_মোটা_হব।

 

আশা করি উপরের নিয়ম গুলো মানলে আপনার ভিডিও কম করে হলেও র‍্যাংক করাতে পারবেন। তবে সম্পূর্ণ এটা নির্ভর করবে আপনার ভিডিও কনটেন্ট এর উপর। ধরুন আপনার ভিডিও কারোর সামনে আসলো এবং সে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখতে থাকলো তাই কন্টেন্ট কোয়ালিটিও একটি বড় বিষয়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

Related Articles

ভাইরাল নিউজ
স্পনসর
বিনোদন
টেকনোলজি
স্বাস্থ্য
স্পনসর